মেনু নির্বাচন করুন
Text size A A A
Color C C C C
সর্ব-শেষ হাল-নাগাদ: ৩rd মার্চ ২০১৯

বায়তুল মুকাররম মসজিদ ও মার্কেট

বায়তুল  মুকাররম মসজিদ ও মার্কেট

রাজধানী ঢাকায়  একটি বৃহৎ মসজিদ নির্মাণ এবং এর মাধ্যমে ইসলামী দ্বীনি শিক্ষার প্রচার ও প্রসার,ইসলামী প্রস্তক ও সাময়িকী প্রকাশ,মুসলিম বেকারদের প্রশিক্ষণের ব্যবস্থা করা, দারুল উমুল ও দারুল ইফতা প্রতিষ্ঠা-ইত্যাদি ব্যাপক কর্মসূচিকে সামনে রেখে তঃকালীন পূর্ব পাকিস্থানের সামরিক আইন প্রশাসক মেজর জেনারেল ওমরাও খঅন-এর পৃষ্ঠপোষকতায় এবং আলহ্বাজ আবদুল লতিফ ইবরাহীম বাওয়ানী প্রমুখ শিল্পপতির উদ্যেগে ১৯৫৯ সালে ‘বায়তুল মুকাররম সোসাইটি’ নামক একটি সংগঠন প্রতিষ্ঠিত হয়।  মসজিদ নির্মাণ ও উল্লেখিত কার্যসমূহের ব্যয়ভার নির্বাহের জন্য মসজিদ সংলগ্ন একটি মার্কেটও প্রতিষ্ঠার সিদ্ধান্ত নেয়অ হয়। ১৯৬০ সালের ফেব্র্রুয়ারি মাসে এ মসজিদের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করেন তৎকালীন পাকিস্থানের প্রেসিডেন্ট মুহাম্মদ আইয়ুব খান। বায়তুল মুকাররম কমপ্লেক্স –এর নকশা প্রণয়ণ করের প্রখ্যাত স্থপতি জনাব আবুল হোসেন থারিয়ানী। মসজিদটি সাত তলা বিশিষ্ট। রাজধানী ঢাকার প্রাণকেন্দ্র্রে অবস্থিত মসজিদটি দর্শনীয় স্থান হিসেবে দেশি-বিদেশি পর্যটকদের নিকট অত্যন্ত আকর্ষনীয়। সরকারী উন্নয়ন প্রকলে।পর আওতায় এবং সৌদি সরকারের অর্থায়নে ৮.৩০ একর জমির উপর এ মসজিদের শোভা বর্ধন এবং উন্নয়নের কাজ এখনও অব্যাহত রয়েছে। বর্তমানে মূল  মসজিদে এবং দক্ষিণ ও পূর্ব সাহান মিলিয়ে সর্বমোট পয়ঁত্রিশ সহস্রাধিক মুসল্লী একত্রে নামায আদায় করতে পারেন। মসজিদের অভ্যন্তরে ওযুর ব্যবস্থাসহ  মহিলাদের  জন্য পৃথক নামায কক্ষ ও পাঠাগার রয়েছে। প্রায় পাচঁ হাজার মহিলা মুসল্লীর নামাযের সুন্দর ব্যবস্থা রয়েছে বায়তুল মোকাররম মসজিদে। মসজিদের নিচতলায় রয়েছে একটি বৃহত্তর ও অত্যাধুনিক সুসজ্জিত মার্কেট কমপ্লেক্স। রাজধানী ঢাকার খ্যাতনামা জুয়েলারী,ইলেকট্রনিক্স,লেদার ইসলামী পুস্তক ও টুপী,আতর,তসবিহর বিশাল মার্কেট  বায়তুল মুকাররম অবস্থিত। এ খ্যাতনামা মার্কেটে প্রায় এক হাজার দোকান রয়েছে। একজন পরিচালক এ বিভাগের প্রধান হিসাবে দায়িত্ব পালন করেন।


Share with :

Facebook Facebook